Blog

বাজারে ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন পাওয়া গেলেও আইফোনে এখনো সেই ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরাই ব্যবহার করা হয়। গুগলের পিক্সেল সিরিজের স্মার্টফোনেও তা-ই। এর মূল কারণ হলো, স্মার্টফোনের ক্যামেরার সেন্সরের জন্য ১২ মেগাপিক্সেলই আদর্শ। এর বেশ কিছু কারণ আছে। স্টোরেজের ব্যাপার আছে। ছবি প্রসেসিংয়ে প্রয়োজনীয় সময়ের ব্যাপারও আছে। আবার কম আলোয় ভালো ছবি তোলার ব্যাপারটিও ব্র্যান্ডগুলোকে মাথায় রাখতে হচ্ছে। তা ছাড়া বেশি রেজল্যুশনের ছবি বা ভিডিও দেখার পর্যাপ্ত ডিভাইসও নেই। এর সঙ্গে আছে ব্যাটারির আয়ু এবং ক্যামেরার অ্যাপের মতো কম প্রত্যক্ষ বিষয়গুলোও। বেশি মেগাপিক্সেল মানে বেশি ডেটা, বেশি ডেটা মানে বেশি স্টোরেজ ক্যামেরা যত বেশি মেগাপিক্সেলের হবে, স্মার্টফোনের তত বেশি ডেটা প্রসেস করতে হয়। এতে ফোন ধীরগতির হয়ে যায়, ব্যাটারি ফুরোয় দ্রুত। আর নাইট মোড কিংবা পোর্ট্রেট মোডে তোলা ছবি প্রসেস করতে আরও বেশি সময় লাগে। তা ছাড়া বেশি মেগাপিক্সেলের ছবি বেশি রেজল্যুশনের হয়। এতে ছবির ফাইলের আকার বেড়ে যায়। মেমোরি কার্ডে বেশি জায়গা খরচ করে। আবার কোথাও আপলোড করার সময় ব্যান্ডউইডথও বেশি খরচ হয়। সব ফোনে তো আর অতিরিক্ত মেমোরি কার্ড স্লট যোগ করার সুযোগ থাকে না।

Published on: 6/11/21, 6:59 PM

জুরং মানুষ হলে ফেসবুকে তার একটি অ্যাকাউন্ট থাকত। সকাল-বিকেল ছবি পোস্ট করত। আমরাও সে ছবি দেখে হালহকিকত জানতাম। লাভ, লাইক, মাঝেমধ্যে হাহা দিতাম। কিন্তু না, জুরং একটি রোভার কিংবা রোবটযান, যে কিনা নিজে নিজে চলে। গত মে মাসে মঙ্গলে অবতরণ করেছে। এখন নিঃসঙ্গ শেরপা হয়ে মানুষের আশার বিশাল বোঝা বহন করে মঙ্গলপৃষ্ঠে চরে বেড়াচ্ছে জীবনের খোঁজে। ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট নেই বলে খুব হতাশ হওয়ার কিছু নেই। সুদূর মঙ্গল গ্রহ থেকে চীনের জুরং রোভার ঠিকই একগুচ্ছ নতুন ছবি পাঠিয়েছে। সেখানে একটি ‘সেলফি’ও আছে। তবে নাসার পার্সিভারেন্সের মতো জুরংয়ের দীর্ঘ বাহু তো নেই। সেলফি সে তোলে কী করে?

Published on: 6/11/21, 6:56 PM

অনেকে দেখবেন, দরকার থাকুক বা না থাকুক, চার্জার হাতের নাগালে এলেই তাতে মুঠোফোন লাগিয়ে দেয়। আবার নিয়ম করে ফোনে চার্জের পরিমাণ ২০ থেকে ৮০ শতাংশের মধ্যে রাখে, এমন কিছু মানুষও পাবেন। পূর্ণ চার্জ করলে দ্রুত ব্যাটারি ফুরিয়ে যাবে, এমন বিশ্বাস থেকেই তাঁরা হয়তো এমনটা করেন। প্রতিবেদনে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস অবশ্য বলেছে, মুঠোফোন চার্জ করায় বেশি খুঁতখুঁতে হলে লাভ যে একেবারে নেই, তা নয়। তবে লাভের গুড় উল্টো পিঁপড়া খেয়ে যেতে পারে।

Published on: 6/11/21, 6:50 PM